শুক্রবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সব

Singapore
Corona Update

Confirmed Recovered Death
59,879 59,746 29

Bangladesh
Corona Update

Confirmed Recovered Death
543,717 492,059 8,356

জনসনের টিকার অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক | ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ৯:৫৪ পূর্বাহ্ণ
জনসনের টিকার অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র ছবি-সংগৃহীত

ফাইজার-বায়োএনটেক ও মডার্নার পর এবার জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনা টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির অন্যতম নিয়ন্ত্রক সংস্থা খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) স্থানীয় সময় শনিবার এই অনুমোদন দিয়েছে।

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার অনুমোদন করল যুক্তরাষ্ট্র। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী জুন নাগাদ দেশটিতে ১০ কোটি টিকার ডোজ সরবরাহ করবে জনসন অ্যান্ড জনসন।

banglarkantha.net

এফডিএর এই অনুমোদনে উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। পাশাপাশি করোনা বিষয়ক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যাপারে সচেতন থাকতে দেশের জনগণকে আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

banglarkantha.net

এক বিবৃতিতে জো বাইডেন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিকদের জন্য আনন্দের সংবাদ— অবশেষে আমরা হাতের নাগালে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা পাচ্ছি। যদিও এই সংবাদটি আমাদের জন্য উদযাপনের উপলক্ষ্য বয়ে এনেছে, তারপরও মনে রাখা প্রয়োজন, আরো বেশ কিছুদিন করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে যেতে হবে আমাদের।’

‘আমি সব আমেরিকানদের বলব— নিয়মিত হাত পরিষ্কার রাখুন, সামজিক দূরত্ব বজায় রাখুন এবং মাস্ক ব্যবহার অব্যাহত রাখুন। কারণ, আমরা সবাই ইতোমধ্যে জেনেছি বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো যুক্তরাষ্ট্রেও করোনার কয়েকটি নতুন ধরন শনাক্ত হয়েছে, যেগুলো অনেক বেশি সংক্রামক।’

‘যদি আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যাপারে যত্নশীল না হই, সেক্ষেত্রে এখন পর্যন্ত পরিস্থিতির যতখানি উন্নয়ন হয়েছে- নিমিষে তা উল্টে যেতে পারে।’

ফাইজার-বায়োএনটেক, মডার্না, স্পুটনিক ৫, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, কোভিশিল্ডসহ অন্যান্য যেসব করোনা টিকা বাজারে পাওয়া যাচ্ছে সেগুলো দু’ডোজের টিকা। এসব টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার একটি নির্দিষ্ট সময় পেরুনোর পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হয়।

কিন্তু জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনা টিকা এক ডোজের। অর্থাৎ, এই টিকার প্রথম ডোজেই মানবদেহে কার্যকর করোনা প্রতিরোধী প্রোটিন গড়ে ওঠে। অন্যান্য টিকার তুলনায় সাশ্রয়ী জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা সংরক্ষণের জন্য বিশেষ ফ্রিজারের প্রয়োজন হয় না, সাধারণ রেফ্রিজারেটরেই এই টিকার ডোজ সংরক্ষণ করা সম্ভব।

জনসন অ্যান্ড জনসন টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বেলজিয়ামভিত্তিক কোম্পানি ইয়ানসেন বরাবর ইতোমধ্যে টিকার অর্ডার দিয়েছে যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, কানাডা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও গ্যাভি ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্সের করোনা টিকা বিতরণ প্রকল্প কোভ্যাক্স ইনিশিয়েটিভ।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্য ৩ কোটি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ২০ কোটি, কানাডা ৩ কোটি ৮০ লাখ এবং কোভ্যাক্স ইনিশিয়েটিভ ৫০ কোটি ডোজ জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার অর্ডার দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৭০ লাখ ২৮ হাজার মানুষকে টিকার আওতায় আনা হয়েছে। প্রতিদিন দেশজুড়ে টিকা দেওয়া হচ্ছে সেখানে প্রায় ১০ লাখ ৩০ হাজার মানুষকে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানিয়েছেন, তার মেয়াদের প্রথম ১০০ দিনের মধ্যে ১০ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে মার্কিন প্রশাসনের।

বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকেই এ রোগে আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য বলছে, দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ কোটি ৯২ লাখ ২ হাজার ৮২৪ জন। এ রোগে আক্রান্ত হয়ে সেখানে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ২৪ হাজার ৬৬৯ জনের।

সূত্র: বিবিসি

Facebook Comments Box

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের আরও খবর
আর্কাইভ
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০