মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সব

Singapore
Corona Update

Confirmed Recovered Death
59,879 59,746 29

Bangladesh
Corona Update

Confirmed Recovered Death
543,717 492,059 8,356

সিঙ্গাপুরে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় এবং যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলো মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২১

একেএম মোহসিন | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ৪:২১ অপরাহ্ণ
সিঙ্গাপুরে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় এবং যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলো মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০২১

প্রতি বছরের মতো বিপুল উৎসাহ-উদ্দিপনা এবং যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস–২০২১ পালন করেছে বাংলাদেশ হাইকমিশন, সিঙ্গাপুর। জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনা ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণের মধ্য দিয়ে সকালে দিবসের কার্যক্রমের সূচনা করেন হাইকমিশনার জনাব মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, এনডিসি। অতঃপর ভাষা শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হাইকমিশনে রক্ষিত শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বাংলাদেশ হাইকমিশন, দেশীয় ব্যাংকিং হাউজসমূহ ও বাংলাদেশ বিমানের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, এবং সিঙ্গাপুরে অবস্থিত বিভিন্ন প্রবাসী সংগঠনের প্রতিনিধিগণ। বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলন ও একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে শহিদ, এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্টের কাল রাতে শাহাদাতবরণকারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারবর্গের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। তাঁদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে করা হয় বিশেষ মোনাজাত। দিবসটি উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দেয়া বাণীসমূহ পড়ে শোনান হাইকমিশনের কর্মকর্তাবৃন্দ। এসময়ে মহান শহিদ দিবসের উপরে নির্মিত একটি আলেখ্যও প্রদর্শিত হয়। দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বিশেষ আলোচনায় অংশ নেন সিঙ্গাপুর বাংলাদেশ সোশাইটির সভাপতি জনাব মোঃ হাফিজুর রহমান এবং বিডিচ্যাম-এর সভাপতি প্রফেসর ডঃ আব্দুর রহিম। আলোচকেরা বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলনকে বাঙ্গালী জাতির মুক্তি সংগ্রামের প্রথম সোপান বলে অবহিত করেন ।

মান্যবর হাইকমিশনার তাঁর বক্তব্যের শুরুতেই সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। মাতৃভাষা বাংলার অধিকার আদায়ে বায়ান্নোর ভাষা শহিদদের অবদানকেও তিনি শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করেন। ১৯৫২ সালের ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনে ‘সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ”-এর প্রধান হিসেবে বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অবদানের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, মাতৃভাষা হিসেবে বাংলা আজ বিশ্বের বুকে স্বগৌরবে প্রতিষ্ঠিত হলেও বিশ্বব্যাপি মাতৃভাষাসমূহকে বাঁচিয়ে রাখার লক্ষ্যে চিরায়ত সংগ্রাম এখনও শেষ হয়নি। পৃথিবী থেকে প্রতি বছরই কোন না কোন ভাষা বিলুপ্ত হচ্ছে। এর সাথে হারিয়ে যাচ্ছে অনেক ইতিহাস- ঐতিহ্য আর সংস্কৃতি।

banglarkantha.net

হাইকমিশনার মোঃ তৌহিদুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে ২১শে ফেব্রুয়ারি অর্জন করেছিল “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস” হিসেবে জাতিসঙ্ঘের স্বীকৃতি। এই ঐতিহাসিক উদ্যোগের জন্য তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ‘নতুন যুগের ভাষা সৈনিক’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। উপস্থিত শ্রোতাদের তিনি মনে করিয়ে দেন যে, এই দিবস এখন কেবল বাংলাদেশের নয় বরং সমগ্র বিশ্বের। বিশ্বব্যাপি মাতৃভাষার অধিকার আদায় ও সংরক্ষণে এই দিনটি আমাদের উজ্জীবিত করে। তিনি আরো বলেন, একটি সুখী ও সমৃদ্ধ বিশ্ব ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবার মায়ের ভাষাকে যথাযথ মর্যাদা দিয়ে বিলুপ্তপ্রায় ভাষাগুলোকে সংরক্ষণ করে বিশ্বের বিভিন্ন ভাষাভাষিদের মাঝে নিবিড় যোগসূত্র গড়ে তুলবার এখনই সময়।

এছাড়া অপরাহ্ণে, কোভিড-১৯ এর সকল প্রটোকল মেনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে দেশী-বিদেশী শিল্পীদের পরিবেশনায় মাতৃভাষার বন্দনা করে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়।

 

 

Facebook Comments

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
এ বিভাগের আরও খবর
আর্কাইভ
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১